মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

কার্যবিবরণী ও সিদ্ধান্ত

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা পরিষদ

জুরাছড়ি উপজেলা, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা।

 

জুরাছড়ি উপজেলা পরিষদের নভেম্বর/২০১২ মাসের মাসিক সভার কার্যবিবরণী।

 

সভাপতি              ঃ জনাব প্রবর্তক চাকমা, চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, জুরাছড়ি, রাঙ্গামাটি।

সভার স্থান            ঃ উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষ।

তারিখ ও সময়      ঃ ২৭.১১.২০১২ খ্রিঃ, সকাল ১১.০০ ঘটিকা।

সভার উপস্থিতি      ঃ পরিশিষ্ট ’’ক’’।

 

            সভার প্রারম্ভে সভাপতি মহোদয় উপস্থিত সম্মানিত সদস্যবৃন্দকে স্বাগত জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করেন। তিনি ঈদ, দূর্গাপূজা, কঠিন চীবর দান সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হওয়ায় তিনি উপস্থিত সকলকে আমত্মরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। এরপর  তিনি উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব মোহাম্মদ সাইফুল ইসলামকে অদ্যকার সভা পরিচালনার জন্য অনুরোধ জানান। অতঃপর সভাপতি মহোদয়ের অনুমতিক্রমে উপজেলা নির্বাহী অফিসার উপস্থিত সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়ে সভা পরিচালনার কাজ আরম্ভ করেন। তিনি বিগত সভার কার্যবিবরণী পাঠ করে শুনান। এতে কোন সংশোধনী বা সংযোজনী না থাকায় তা সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়ীকরণ করা হয়। অতঃপর অত্র উপজেলা পরিষদের নভেম্বর/২০১২ মাসের বিভিন্ন বিভাগওয়ারী বিসত্মারিত আলোচনা হয়।  আলোচনা ও সিদ্ধামত্মসমূহ নিম্নরূপঃ

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী কর্তৃপক্ষ

০১। উপজেলা প্রকৌশল বিভাগ (এলজিইডি)ঃউপজেলা প্রকৌশলীর প্রতিনিধি জনাব গোলাম রসুল সভায় জানান যে, ২০১২-২০১৩ অর্থ বছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচীর ১ম কিসিত্মতে ১৬,১০,০০০/- টাকা বরাদ্দ পাওয়া যায়। উক্ত বরাদ্দের আলোকে ইউপি চেয়ারম্যান এবং বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তাদের নিকট থেকে প্রকল্প পাওয়া গেছে। সভাপতি মহোদয়ের সিদ্ধামেত্মর আলোকে উক্ত প্রকল্প সমূহ আগামী ০৩/১২/২০১২ খ্রিঃ তারিখে বাছাই করা হবে।

 

এছাড়া তিনি আরো জানান যে, সভাপতি নির্দেশ ক্রমে উপজেলায় পরিত্যক্ত ৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিত্যাক্ত মালামাল নিলামের জন্য প্রাক্কলন সভায় উপস্থাপন করেন-

সামিরামূখ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় -  ৩৭,৭৫৭/-

জামিরাছড়ি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় -  ৬,৩২৮/-

কাঠালতলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় -  ৬,০২৬/৬৪

উক্ত বিদ্যালয়ের সম্পত্তি নিলামের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

 

সভাপতি মহেদয় উলেস্নখ করেন যে ডেবাছড়ায় একটি বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিত্যক্ত অবস্থায় আছে। যেটিতে একটি পরিবার অবৈধ ভাবে অবস্থান করছে। তিনি জানান উক্ত বিদ্যালয়টিতে কোন কার্যক্রম চলছে না। তিনি উক্ত বিদ্যালয়টিকে ফকিরাছড়ায় স্থানামত্মরের জন্য সভায় অনুরোধ করেন।

১। জরম্নরী ভিত্তিতে প্রকল্প বাছাই করে আগামী সভার পূর্বে প্রকল্পের তালিকা সভায় উপস্থাপন করার জন্য সর্বসম্মত সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

২। নিলামের প্রাক্কলন প্রস্ত্ততকৃত ৩টি বিদ্যালয় নিলামের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য সভায় সর্বসম্মত সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

৩।ডেবাছড়ায় পরিত্যক্ত বিদ্যালয়টি ফকিরাছড়ায় স্থানামত্মরের সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা প্রকেীশলী,

এলজিইডি, জুরাছড়ি।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষাকর্মকর্তা, জুরাছড়ি।

২। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগঃ উপজেলা জনস্বাস্থ্য বিভাগের কেউ সভায় উপস্থিত না থাকায় তাদের বিভাগের কার্যক্রম সম্পর্কে কিছু জানা সম্ভব হয়নি।

আগামীতে সভায় নিয়মিত উপস্থিত থাকার জন্য সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী, জুরাছড়ি।

৩। কৃষি বিভাগঃ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার প্রতিনিধি বিদ্যুৎ কুমার চৌধুরী সভায় জানান যে, উপজেলায় রোপা আমন ধান কর্তন শেষ হয়েছে। উপজেলায় ৪৭০ হেক্টর জমিতে আমন ধানের আবাদ হয়েছে এবং ৯২১ মেঃ টন চাল উৎপাদন হয়েছে। বর্তমানে রবি মৌসুমের আবাদ শুরম্ন হয়েছে এবং বোরো ধানের বীজতলা প্রস্ত্ততের কাজ চলছে। তিনি আরো জানানযে, উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণ কৃষকদের নিয়মিত পরামর্শ প্রদান এবং সহযোতিা প্রদান করে যাচ্ছেন।

সভাপতি মহোদয় উপজেলার বর্তমান কৃষি কর্মকান্ডের জন্য উপজেলা কৃষি বিভাগকে আমত্মরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। আগামীতেও এ ধারা অব্যাহত রাখার জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে অনুরোধ করেন।

আগামীতে বোরো মৌসুমের ফসল যাতে বাম্পার ফলন হয় সেজন্য উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তাগণ কৃষকদের প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান করবেন মর্মে সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা, জুরাছড়ি।

৪। স্বাস্থ্য বিভাগঃ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তার প্রতিনিধি ডাঃ মোঃ নওফেল সভায় জানান যে, হাসপাতালের অমত্মঃ বিভাগ ও বহিঃ বিভাগের এবং ইপিআই কার্যক্রম, জরম্নরী স্বাস্থ্যসেবার কার্যক্রম সুচারম্নভাবে সম্পন্ন হচ্ছে। আগামী ১ ডিসেম্বর আমত্মর্জাতিক এইডস দিবস উদযাপন করা হবে। উক্ত দিবস সুষ্ঠুভাবে উদযাপনের জন্য তিনি উপস্থিত সকল বিভাগের কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিদের সভায় আহবান করেন।

সভাপতি মহোদয় উপজেলায় প্রতিদিন কমপক্ষে ১জন ডাক্তারের উপস্থিতি নিশ্চিত করার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তাকে অনুরোধ করেন।

১। উপজেলায় কমপক্ষে ১জন ডাক্তার উপস্থিত থাকবেন মর্মে সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

২। আগামী ১ডিসেম্বর আমত্মর্জাতিক এইডস দিবস সুষ্ঠভাবে উদযাপনের সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা, জুরাছড়ি।

৫।শিক্ষা বিভাগঃ  উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার প্রতিনিধি সভায় জানান যে, গত ২০ নভেম্বর/২০১২ খ্রিঃ তারিখ হতে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা শুরম্ন হয়েছে। উক্ত পরীক্ষা ৩টি কেন্দ্রে সুষ্ঠ ও স্বাভাবিক পরিবেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

সভাপতি মহোদয় উলেস্নখ করেন যে, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা তাদের সাথে পরামর্শ না করে ৬ষ্ঠ থেকে ৮মশ্রেণী চালু করার জন্য বিদ্যালয়ের প্রসত্মাব প্রেরণ করেছেন। এ প্রসত্মাব কিন্তু এ উপজেলায় তেমন কাজে আসবে না। তিনি আগামীতে যে কোন বিভাগেরযেকোন বিষয়ে সিদ্ধামত্ম দেওয়ার আগে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও তার সাথে পরামর্শ গ্রহন করার জন্য অনুরোধ করেন।

যে কোন বিষয়ে সিদ্ধামত্ম গ্রহণ করার আগে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও চেয়ারম্যান এর নিকট থেকে পরামর্শ গ্রহণ করার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, জুরাছড়ি।

৬।উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষাঅধিদপ্তর ঃ  উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারের প্রতিনিধি জনাব অজয় বড়ুয়া সভায় জানান যে, ২০১৩ সালে মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পর্যায়ে বিনামূল্যে বিতরণ শুরম্ন করার জন্য সম্ভাব্য চাহিদা NCTB এর বরাবর এ পর্যমত্ম ২৬,০৫৩ টি বই এর চাহিদা প্রেরণ করা হয়েছে। চাহিদা অনুযায়ী এ পর্যমত্ম ৪৬৮টি বই পাওয়া যায়। তিনি আরো উলেস্নখ করেন বিগত বছরের মতো এবছরেও তাকে যেন বই রাখার জন্য সাময়িক ১টি রম্নমের ব্যবস্থা করেদেওয়া হয়।

বই বিতরণ কার্যক্রম সুষ্ঠু ভাবে সম্পাদনের জন্য উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগকে সাময়িক ১টি রম্নম প্রদানের সর্ব সম্মত সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা প্রকৌশলী, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা। জুরাছড়ি

০৭। উপজেলা প্রাণিসম্পদ বিভাগঃ  ২০১১-২০১২ সালের পরিসংখ্যান অনুসারে জুরাছড়ি উপজেলার ৪(চার) ইউনিয়নের গবাদী প্রাণী ও হাঁস মুরগীর সংখ্যা-৩৬৩৯০ এবং ২০০৮ সালে সংখ্যা ছিল ১৬,৯১৭। বর্তমানে উপজেলায় গবাদী প্রাণী ও হাঁস মুরগীর সংখ্যা বাড়লেও ঔষধ সরবরাহের বরাদ্দ কোন বৃদ্ধি পায়নি। ফলে চিকিৎসা ও সেবা প্রদান কার্যক্রম ব্যহত হচ্ছে। তিনি জানান যে, বর্তমান অর্থবছরে এডিপি খাতে কৃষিতে যে বরাদ্দ আছে সেখান থেকে যদি ঔষধ ক্রয়ের জন্য কিছু বরাদ্দ রাখা হয় তবে উপজেলার প্রাণি সম্পদ বিভাগের চিকিৎসা সেবা আরো অনেক বৃদ্ধি পাবে।

সভাপতি মহোদয় উপজেলা প্রাণি সম্পদ বিভাগের কর্মকর্তাকে আগামী ০৩/১২/২০১২ খ্রিঃ তারিখের পূর্বে জরম্নরী ভিত্তিতে ঔষধ ক্রয়ের জন্য একটি প্রকল্প উপস্থাপন করার জন্য অনুরোধ করেন।

 

উপজেলা প্রাণি সম্পদ বিভাগের কর্মকর্তা আগামী ০৩/১২/২০১২ খ্রিঃ তারিখের পূর্বে ঔষধ ক্রয়ের জন্য একটি প্রকল্প উপস্থাপন করবেন মর্মে সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা, জুরাছড়ি।

০৮। উপজেলা প্রকল্প বাসত্মবায়ন বিভাগঃ উপজেলা প্রকল্প বাসত্মবায়ন কর্মকর্তা সভায় তার বিভাগের চলমান প্রকল্পের কার্যক্রম তুলে ধরেনঃ

টি আর সাধারণ ১ম পর্যায়ঃ ১ম কিসিত্মর খাদ্যশস্য ছাড় করা হয়েছে প্রকল্পের অগ্রগতি সমেত্মাষজনক।

টি আর বিশেষ ১ম পর্যায়ঃ ১ম কিসিত্মর খাদ্যশস্য ছাড় করা হয়েছে। কাজের অগ্রগতি সমেত্মাষজনক।

কাবিখা ১ম পর্যায় সাধারণঃ প্রকল্প গ্রহণ পূর্বক জেলায় প্রেরণ করা হয়েছে।

কাবিখা বিশেষ ১ম পর্যায়ঃ প্রকল্প গ্রহণ পূর্বক জেলায় প্রেরণ করা হয়েছে।

অতি দরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচীঃ ৪টি প্রকল্পের কাজ চলমান এবং কাজের অগ্রগতি সমেত্মাষজনক।

শীতবস্ত্র বিতরণঃ এ উপজেলায় শীতার্থ মানুষের জন্য ১২৪ পিস কম্বল বরাদ্দ পাওয়া যায়। ইউনিয়ন ওয়ারী বিভাজনের জন্য তিনি সভায় আহবান করেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার  সভায় জানান যে, এ উপজেলায় চলমান প্রত্যেকটি প্রকল্পের কাজের গুনগত মান যাতে অটুট থাকে সেজন্য প্রত্যেকটি প্রকল্প  সরেজমিনে তদারকি করার জন্য উপজেলা প্রকল্প বাসত্মবায়ন কর্মকর্তাকে অনুরোধ করেন।

১। শীতার্থ মানুষের জন্য ১২৪ পিস কম্বল জরম্নরী ভিত্তিতে বিতরণের সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

২। প্রকল্পের কাজের গুনগত মান যাতে অটুট থাকে সেজন্য প্রকল্প বাসত্মবায়ন কর্মকর্তা নিয়মিত প্রকল্প পরিদর্শন পূর্বক তদারকি করবেন মর্মে সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়

প্রকল্প বাসত্মবায়ন কর্মকর্তা, সকল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান।

০৯। যুব উন্নয়ন বিভাগঃ উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার প্রতিনিধি সভায় জানান যে,  যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার ডিউটির কাজে বিলাইছড়িতে ব্যসত্ম থাকায় আসতে পারেন নি। তিনি আরো জানান যে,

চলতি অর্থ বছরে তাদের ঋণ প্রদানের লক্ষমাত্রা ৪,৮০,০০০/- টাকা এবং এ পর্যমত্ম বিতরণ করা হয়েছে ১,৩০,০০০/-, এ মাসে ঋণ আদায় হয়েছে ১০,০০০/-। তিনি আরো জানান যে, চলতি অর্থ বছরে প্রশিক্ষণের লÿ্যমাত্রা ২৪০ জন। আগামী মাসের ০৩/১২/২০১২ খ্রিঃ তারিখ থেকে এ উপজেলায় ৪০ জনকে মাশরম্নম চাষের উপর প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে।

সভাপতি মহোদয় জানান, ঋণ আদায় কার্যক্রম আরো গতিশীল করার জন্য এবং প্রশিক্ষণ কার্যক্রম আরো জোরদার করার জন্য তিনি উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা ঋণ আদায় এবং প্রশিক্ষণ কার্যক্রম আরো জোড়দার করবেন মর্মে সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা।

১০। উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগঃ  উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের কেউ উপস্থিত  না থাকায় তাদের বিভাগের কার্যক্রম সম্পর্কে কিছু জানা সম্ভব হয়নি।

সভাপতি মহোদয় পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের কেউ উপস্থিত না থাকায় অসমেত্মাষ প্রকাশ করেন। এভাবে নিয়মিত উপস্থিত না থাকলে ঊর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হবে মর্মে বলে জানান।

আগামীতে সভায় নিয়মিত উপস্থিত থাকার জন্য এবং সভায় উপস্থিত না থাকলে ঊর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা প্রকল্প বাসত্মবায়ন কর্মকতা।

১১। খাদ্য বিভাগঃউপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক সভায় জানান যে, বর্তমানে খাদ্য গুদামে ৩৬৫.০০০ মেঃ টন চাল মজুদ আছে। কোন গম নেই। আরো ১০০.০০০ মেঃ টন আতপ চাল পরিবহন সূচীর জারির অপেক্ষায় আছে। 

 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উপজেলায় যাতে কোন খাদ্যাভাব দেখা না যায় গুদামের সর্বোচ্চ সীমা পর্যমত্ম খাদ্য শস্য মজুদ করার জন্য অনুরোধ করেন এবং খাদ্যশস্য মজুদের ক্ষেত্রে আতপ চালের দিকে দৃষ্টি দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেন।

গুদামের সর্বোচ্চ সীমা পর্যমত্ম খাদ্যশস্য মজুদের ব্যবস্থা করবেন এবং মজুদেরক্ষেত্রে আতপ চাল মজুদের দিকে দৃষ্টি দিবেন মর্মে সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক, জুরাছড়ি।

১২। উপজেলা পলস্নীউন্নয়ন বিভাগঃ উপজেলা পলস্নী উন্নয়ন কর্মকর্তা সভায় জানান যে, তাদের একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্পে উৎসাহ সঞ্চয় বাবাদ ১২,৯৬,০০০/- টাকা এবং ঋণ তহবিল বাবদ ১৩,১৪,০০০/- টাকা সহ মোট ২৬,১০,০০০/- টাকা নতুন বরাদ্দ এসেছে। তিনি আরো জানান যে, তাদের বিভাগীয় কার্যক্রম স্বাভাবিক ভাবে চলছে এবং ঋণ আদায় কার্যক্রম ৭০%।

সভাপতি মহোদয় জানান যে, সামনে একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্পের শূন্য পদ গুলি পূরণ করা হবে। তাই মাঠ পর্যায়ের কার্যক্রমে যাতে গতিশীলতা বৃদ্ধি পায় সেদিকে খেয়াল রাখার জন্য উপজেলা পলস্নী উন্নয়ন কর্মকর্তাকে অনুরোধ করেন।

মাঠ পর্যায়ের কার্যক্রম আরো  গতিশীল করার জন্য উপজেলা পলস্নী উন্নয়ন কর্মকর্তা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন মর্মে সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা পলস্নী উন্নয়ন কর্মকর্তা, জুরাছড়ি।

১৩।সমাজসেবা বিভাগঃউপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা সভায় তার বিভাগের কার্যক্রম তুলে ধরেন-

(ক) সামজিক নিরাপত্তা কর্মসূচীর আওতায় বয়স্কভাতা, বিধবাভাতা, অসচ্ছল প্রতিবন্ধী ভাতাভোগীদের নিমণ হারে ২০১২-২০১৩ অর্থ বছরে বরাদ্দ পাওয়া যায়। ভাতাভোগীদের নিজস্ব ব্যাংক হিসাবে স্থানামত্মর ও বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত আছে।

ক্রঃ নং

কার্যক্রমের নাম

ভাতাভোগীর সংখ্যা

প্রাপ্ত বরাদ্দ

ভাতাভোগীদের ব্যাংক হিসাবে স্থানামত্মরকৃত টাকা

১।

বয়স্ক ভাতা

৮৪৬ জন

৭,৬১,৪০০/-

৭,৬১,৪০০/-

২।

বিধবা ভাতা

৬৪৫ জন

৫,৮০,৫০০/-

৫,৮০,৫০০/-

৩।

অস্বচ্ছল প্রতিবন্ধী ভাতা

৫৮ জন

৫২,২০০/-

৫২,২০০/-

(খ) অস্বচ্ছল প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি খাতে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের প্রাথমিক সত্মরে ৬ জন ৩০০/- টাকা হারে, মাধ্যমিক সত্মরে ১ জন ৪৫০/- টাকা হারে ৩(তিন) মাসের বরাদ্দ পাওয়া যায়। উক্ত উপবৃত্তি ডিসেম্বর/২০১২ মাসের ১ম সপ্তাহে বিতরণ করা হবে।

(গ) পলস্নী সমাজসেবা কার্যক্রমে (আর.এস.এস) ÿুদ্র ঋণ দীর্ঘ অনাদায়ী ঋণ আদায় সম্পর্কে সংশিস্নষ্ট ইউপিচেয়ারম্যান এবংমেম্বারগণের সহযোগিতা কামনা করেন।

(ঘ) পলস্নী সমাজসেবা কার্যক্রমের ৩য় সংস্করনে ৪টি ইউনিয়নে ৪টি গ্রাম নির্বাচন করা হয়েছে। উক্ত চার গ্রামে পরিবার জরিপ সহ অন্যান্য আনুষাঙ্গিক কার্যক্রম অব্যাহত আছে। পরিবার জরিপ কাজ, কর্মদল গঠন, গ্রাম কমিটি গঠন করার পর আগামী ডিসেম্বর/২০১২ মাসের মধ্যে ঋণ বিতরণ কার্যক্রম শুরম্ন হবে।

(ঙ) দুঃস্থ, গরীব রোগীদের আর্থিক সহায়তার জন্য রোগী কল্যাণ সমিতি কর্তৃক সাহায্যের আবেদন ফরম উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয় হতে সংগ্রহ করার জন্য অনুরোধ করেন। তিনি রোগী কল্যাণ সমিতির তহবিল বাড়ানোর জন্য উপস্থিত সকল জনপ্রতিনিধি এবং কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

১। জনপ্রতিনিধিদেরকে সম্পৃক্ত করে তার বিভাগের সকল কর্মসূচি বাসত্মবায়ন করবেন মর্মে সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

২। রোগী কল্যাণ সমিতির তহবিল বৃদ্ধির জন্য প্রতি মাসের সভার তারিখে চাঁদা সংগ্রহ করার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

সকল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এবং উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা।

১৪। মৎস্য বিভাগঃ  উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সভায় জানান যে, রাঙ্গামাটিতে জেলেদের প্রশিক্ষণের জন্য যারা প্রশিক্ষণে অংশগ্রহন করেছেন এবং করবেন তাদেরকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতেজেলেদের নিবন্ধন করা হবে। যা পরবর্তীতে কার্ড দেওয়া হবে। এ কার্যক্রমটি আগামী ডিসেম্বর মাসে শুরম্ন হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানান বিগত সভার সিদ্ধামেত্মর আলোকে মৎস্য বিভাগের পোনা অবমুক্তকরণের জন্য বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছিল তা কার কার কাছে পোনা বিতরণ করা হয়েছিল তার একটি তালিকা প্রদানের জন্য সভায় অনুরোধ করা হয়েছিল কিন্তু তার তালিকা এখনো পাওয়া যায়নি। আগামী সভার আগে অবশ্যই পোনা বিতরণের তালিকা উপস্থাপন করার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

আগামী সভায় অবশ্যই পোনা বিতরণের তালিকা উপস্থাপন করবেন মর্মে সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা  মৎস্য কর্মকর্তা, জুরাছড়ি।

১৫।মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরঃ  মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সভায় তার বিভাগের কার্যক্রম সভায় উপস্থাপন করেন।

(ক) গত ১৬/১১/২০১২ খ্রিঃ তারিখে শুভলং শাখা বন বিহারে কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠানের সময় অমিয় চাকমা (২৩), প্রমোদ চাকমা (২০), বাবু চাকমা(২০), রয় চাকমা (২৩), সুখী রায় চাকমা (২০), রিগান চাকমা (২৫) সহ আরো অজ্ঞাত ৩/৪ জন কর্তৃক শিখা চাকমা ও জেসি চাকমা নামে দুই স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষন করে। এ ব্যাপারে জেসি চাকমার পিতা জনাব ভাগ্যধন চাকমা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর ৭/৯(১)/৩০ ধারায় একটি মামলা দায়ের করে। অভিযুক্ত আসামীদের ধরার জন্য প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করা হচ্ছে।

(খ) অত্র উপজেলায় ইভটিজিং এবং যৌতুক দেয়া-নেয়া সংক্রামত্ম কোন ঘটনা ঘটেনি।

(গ) নভেম্বর/২০১২ মাসের ভিজিডির আওতায় উপকারভোগী মহিলাদের চাল বিতরণ ২৭ ও ২৮ নভেম্বর তারিখে করা হবে। এর পাশাপাশি তাদের সঞ্চয় ব্যবস্থাপনা ‘‘স্ব নির্ভর বাংলাদেশ সংস্থা কর্তৃক সম্পাদন করা হচ্ছে।

সভাপতি মহোদয় উলেস্নখ করেন যে, ধর্ষনের মতো ঘৃন্য ঘটনা আর যাতে না হয় সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখার জন্য উপস্থিত সকলকে অনুরোধ করেন এবং উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তাকে উক্ত ঘটনার নিয়মিত খোজখবর রাখা এবং ভিজিডি কার্যক্রমে কোন অভিযোগ উত্থাপিত না হয় সেদিকে খেয়াল রাখার জন্য উপজেলা মহিলা বিষযক কর্মকর্তাকে অনুরোধ করেন।

ধর্ষণ ঘটনা নিয়মিত খোজ খবর এবং ভিজিডি কার্যক্রমে সুষ্ঠু তদারকী করার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা।

১৬। পরিসংখ্যান বিভাগঃ উপজেলা পরিসংখ্যান কর্মকর্তা সভায় জানান যে, চলমান কাজের অর্থনৈতিক শুমারি-২০১৩ এর খানা ও প্রতিষ্ঠানের লিষ্টিং তালিকার তথ্যাবলী ইউনিয়ন তথ্য সেবা কেন্দ্রে ধারণ করার জন্য ঢাকা অফিস হতে আইডি নম্বর পাওয়া গেছে। চারটি ইউনিয়ন তথ্যসেবা কেন্দ্রের মধ্যে ইতোমধ্যে বনযোগীছড়া ইউনিয়নের কাজ শেষ হয়েছে। জুরাছড়ি ও বনযোগীছড়া ইউনিয়নের কাজ চলছে। তবে মৈদং ইউনিয়নের কাজ এখনো শুরম্ন করতে পারেনি। এছাড়া বিভাগের অন্যান্য কার্যক্রম স্বাভাবিক ভাবে চলছে।

 উপজেলা নির্বাহী অফিসার মহোদয় নির্দিষ্ট সময়ে কার্যক্রম শেষ করার জন্য উপজেলা পরিসংখ্যান কর্মকর্তাকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করার জন্য সকল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানদের অনুরোধ করেন।

উপজেলা পরিসংখ্যান কর্মকর্তা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে কার্যক্রম শেষ করবেন মর্মে  সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা পরিসংখ্যান কর্মকর্তা ও সকল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান।

১৭। সমবায় বিভাগঃ উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা সভায় জানান যে, উপজেলার ১৪টি প্রাথমিক বার্ষিক অডিট চলতি মাসে অডিট সম্পন্ন হয়েছে। অপর দিকে পলস্নী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব মহোদয়ের আধা সরকারী পত্রে সকল জেলা প্রশাসক মহোদয়গনকে উদ্দেশ্য করে সমবায় কার্যক্রমের গতিশীলতা আনায়নের জন্য বিশেষবস্ত্ত/ পন্য উৎপাদনের সাথে সম্পৃক্ত গ্রাম সমুহকে চিহ্নিত করে পেশা ভিত্তিক গ্রাম সমবায় সমিতি করার নির্দেশ দিয়েছেন। উক্ত পত্রের মর্মানুসারে উপজেলা পরিষদ তথা স্থানীয় জনপ্রতিনিধি মহোদয়গণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করা হয়। গুরম্নত্ব অনুসারে উপজেলা সমবায় সমবায় দপ্তর জুরাছড়ি আগ্রহী সমবায়ী এগিয়ে আসলে সকল বিষয়ের কাজ করা অর্থাৎ নিবন্ধনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বিশেষবস্ত্ত / পন্য উৎপাদনের সাথে সম্পৃক্ত গ্রাম সমুহকে চিহ্নিত করে পেশা ভিত্তিক গ্রাম সমবায় সমিতি গড়ে তোলার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা, জুরাছড়ি।

চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন পরিষদ সকল।

১৮। নির্বাচন বিভাগঃ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সভায় জানান যে, তাদের বিভাগের কার্যক্রম স্বাভাবিক ভাবে চলছে। কোন প্রকার সমস্যা নেই।

বিভাগীয় কার্যক্রম আরো গতিশীল করার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা, জুরাছড়ি

১৯।  উপজেলা আনসার ও ভিডিপি বিভাগঃ উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা সভায় জানান যে, গত মাসে দূর্গা পূজার সময় ২০/১০/২০১২ খ্রিঃ তারিখ হতে ২৪/১০/২০১২ খ্রিঃ তারিখ পর্যমত্ম শামিত্ম শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য পুলিশ বাহিনীর সাথে আনসার বাহিনী সুষ্ঠুভাবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া গঠন জোড়দার করার জন্য এ উপজেলার ৫ জন সদস্য ২১ দিন ব্যাপী জেলা আনসার ও ভিডিপি কার্যালয়ে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে রাঙ্গামাটি ফেরত এসেছেন।

সভাপতি মহোদয় জানান আনসার ও ভিডিপি প্রশিক্ষণ কার্যক্রম জোড়দার করার জন্য আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তাকে অনুরোধ করেন। এছাড়া বিজয় দিবস কুজকাওয়াজে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার জন্য অনুরোধ করেন।

প্রশিক্ষণ কার্যক্রম জোড়দার ও বিজয় দিবস কুচকাওয়াজে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা, জুরাছড়ি।

২০। পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডঃ পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়নবোর্ডের প্রতিনিধি সভায় জানান যে, উপজেলাধীন জুরাছড়ি ইউনিয়নস্থ অলঙ্গ মনি পাড়াকেন্দ্রের পাড়াকর্মী রূপা চাকমা গত ১৬/১১/২০১২ খ্রিঃ তারিখে পদত্যাগ করেছেন। তার স্বামী একই ইউনিয়নের শালবাগান পাড়াকেন্দ্রের পাড়াকর্মী বরুন চাকমা বাড়ী অলঙ্গমুনি পাড়ায়। শাল বাগান হতে কিছু দুর বিধায় অলঙ্গমুনি পাড়ায় তাকে ১লা ডিসেম্বর/১২ খ্রিঃ তারিখ থেকে বদলী করার ব্যাপারে এবং তদস্থলে পাড়াকর্মী নিয়োগ করার ব্যাপারে আলোচনা হয়।

অলঙ্গমুনি পাড়ায় রূপা চাকমা পদত্যাগ করায় তার স্বামী বরম্নন চাকমাকে অলঙ্গমুনি পাড়ায় ১/১২/২০১২ খ্রিঃ তারিখ থেকে বদলী করার এবং শালবাগানে পাড়াকর্মী নিয়োগের সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

প্রকল্প সমন্বয়ক পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড, জুরাছড়ি।

২১। বিবিধঃ

          (ক) অফিস সহকারী জনাব তাপস দেওয়ান সভায় উপজেলা পরিষদের ব্যয়কৃত বিলসমুহ উপস্থাপন করেন।

ক্রঃ নং

বিবরণ

টাকা

১।

জনাব প্রবর্তক চাকমার অক্টোবর/২০১২ মাসের ঘর ভাড়া

(চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ)

৫,০০০/-

২।

জনাব শিশির কুমার চাকমার অক্টোবর/২০১২ বেতন

(এম,এল,এস,এস)

৩,৭৮০/-

৩।

জানব কালা পাথর চাকমার অক্টোবর/২০১২ বেতন

(সুইপার কাম মালি)

৩,৭৮০/-

৪।

জনাব মোঃ আলী (আগষ্ট/১২ ওসেপ্টেম্বর/২০১২ মাসের আপ্যায়ন বিল বাবদ)

১০,০০০/-

৫।

জানব প্রবর্তক চাকমা, নভেম্বর/২০১১, ডিসেম্বর/২০১১, জানুয়ারি/২০১২ ও ফেব্রম্নয়ারি/২০১২ মাসের সম্মানী ভাতার বিল।

৪০,০০০/-

৬।

জনাব রূপ কুমার চাকমা, নভেম্বর/২০১১, ডিসেম্বর/২০১১, জানুয়ারি/২০১২ ও ফেব্রম্নয়ারি/২০১২ মাসের সম্মানী ভাতার বিল।

৩০,০০০/-

৭।

মিসেস আল্পনা চাকমা, নভেম্বর/২০১১, ডিসেম্বর/২০১১, জানুয়ারি/২০১২ ও ফেব্রম্নয়ারি/২০১২ মাসের সম্মানী ভাতার বিল।

৩০,০০০/-

            সিদ্ধামত্মঃ  উপজেলা পরিষদের কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার স্বার্থে অফিস সহকারী জনাব জনাব তাপস দেওয়ান কর্তৃক দাখিলকৃত বিলগুলো সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদন করা হয়। এ  ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অনুরোধ করা হয়।

 

            (খ) সভাপতি মহোদয় জানান যে উপজেলা পরিষদের পুকুরটিতে মৎস্য চাষ করার জন্য উপজেলার কয়েকজন বেকার যুবক জনাব তরম্নন বিকাশ চাকমা, ঝন্টু দেওয়ান ও শিশির কুমার চাকমা ৫ বছরের জন্য লিজ পাওয়ার জন্য আবেদন করেছেন। পুকুরটি লিজ প্রদানের জন্য সভায় বিসত্মারিত আলোচনা হয়।

            সভাপতি মহোদয় জানান যে, উপজেলা পরিষদের আয় খুবই নগন্য। উক্ত পুকুরটি যদি লিজ প্রদান করা হয় তবে উপজেলা পরিষদরে আয় কিছুটা বৃদ্ধি পাবে। তবে তিনি লিজ প্রদানের ক্ষেত্রে ৫ বছরের স্থলে ৩ বছরের জন্য লিজ প্রদানের জন্য সভায় উলেস্নখ করেন।

            সিদ্ধামত্মঃ  বিসত্মারিত আলোচনামেত্ম উপজেলা পরিষদের পুকুরটি বেকার যুবক জনাব তরম্নন বিকাশ চাকমা, ঝন্টু দেওয়ান ও শিশির কুমার চাকমা এর নিকট ৩ বছরের জন্য এক কালীন ২৮,৬০০/- (আটাশ হাজার ছয়শত) টাকা উপজেলা পরিষদ তহবিলে এবং ১৫% হারে ভ্যাট বাবদ ৪,২৯০/- (চার হাজার দুইশত নববই) টাকা সরকারী কোষাগারে জমা প্রদান করে লিজ প্রদানের সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

            (গ) জুরাছড়ি, মৈদং, দুমদুম্যা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানরা সভায় জানান জানান যে, তাঁদেরকোন নিজস্ব  ইউপি কার্যালয় না থাকায় তাঁদের দাপ্তরিক কার্যক্রম পরিচালনা করতে অসুবিধার সৃষ্টি হচ্ছে। তাঁরা যাতে নিজ নিজ ইউনিয়নে ইউপি কার্যালয় স্থাপন করতে পারে সজন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য সভাপতি মহোদয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

 

            সিদ্ধামত্মঃ জুরাছড়ি, মৈদং ও দুমদুম্যা ইউনিয়নের ইউনিয়ন পরিষদ অফিস স্থাপনের জন্য ঊর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট পত্রপ্রেরণ করার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়। এ  ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অনুরোধ করা হয়।

 

            সভাপতি মহোদয় তাঁর বক্তব্যে বলেন যে, প্রায়ই দেখা যাচ্ছে যে, উপজেলা পরিষদের সভায় কোন না কোন কর্মকর্তারা উপস্থিত থাকেন না। তিনি সকল বিভাগের কর্মকর্তাদের সভায় নিয়মিত উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ করেন। তিনি আরো বলেন সামনের বছর থেকে দুমদুম্যা ইউনিয়নে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা কেন্দ্র স্থাপন করা যায় কিনা। কেন্দ্রটি যদি ফকিরাছড়িতে হয় তবে ভাল হয়। কারণ দুমদুম্যা ইউনিয়নের ছাত্রছাত্রীরা অনেক কষ্টে মৈদং ইউনিয়নের শিলছড়ি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে অবস্থান করে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করছে। এ ইউনিয়নের অধিবাসীরা খুবই গরীব। তাই এ এলাকার অধিবাসীদের প্রায়ই দূরবর্তী ইউনিয়নে অবস্থান করে পরীক্ষার ব্যয় নির্বাহ করা তাদের খুবই কষ্টকর হচ্ছে। তাই তিনি সভায় দুমদুম্যা ইউনিয়নের পরীক্ষা কেন্দ্রে স্থাপনের জন্য সভায় আহবান করেন। এছাড়া তিনি আরো বলেন যে, উপজেলার যে কোন বিভাগের বিভিন্ন বিষয়ে সিদ্ধামত্ম দেওয়ার আগে প্রয়োজনীয় পরামর্শ গ্রহণ করার জন্য অনুরোধ করেন। নতুন কিংবা পুরাতন সকল কর্মসূচি বাসত্মবায়নের পূর্বে জনপ্রতিনিধিদেরকে অবহিত করে সিদ্ধামত্ম গ্রহণের জন্য তিনি প্রত্যেক কর্মকর্তাকে অনুরোধ করেন। সভায় আর কোন আলোচ্য বিষয় না থাকায়  উপস্থিত সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভাপতি সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।        

 

স্বা/২৭/১১/২০১২ খ্রিঃ।

(প্রবর্তক চাকমা)

চেয়ারম্যান

উপজেলা পরিষদ, জুরাছড়ি ও সভাপতি

উপজেলা পরিষদ সমন্বয় কমিটি

জুরাছড়ি, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা।

 

স্মারক নং- ০৫.৪২.৮৪৪৭.০০০.১৮.১০৩.১২-                                                                              তারিখঃ ২৭/১১/২০১২ খ্রিঃ।

সদয় অবগতি ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুলিপি প্রেরিত হলোঃ

 

১। সচিব, স্থানীয় সরকার বিভাগ, স্থানীয় সরকার, পলস্নী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়, ঢাকা।

২। কমিশনার, চট্টগ্রাম বিভাগ, চট্টগ্রাম।

৩। প্রধান প্রকৌশলী, এলজিইডি, শেরেবাংলানগর, ঢাকা।

৪। মাননীয় চেয়ারম্যান, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ।

৫। জেলা প্রশাসক, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা।

৬। পরিচালক, স্থানীয় সরকার বিভাগ, বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়, চট্টগ্রাম।

৭। পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী মহোদয়ের একামত্ম সচিব,মন্ত্রী মহোদয়ের সদয় অবগতির জন্য।

৮। চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, জুরাছড়ি, রাঙ্গামাটি।

৯। সিভিল সার্জন/ উপ-পরিচালক, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর/ নির্বাহী প্রকৌশলী, এলজিইডি/ নির্বাহী প্রকৌশলী, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর/ জেলা মৎস্য কর্মকর্তা/ জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা/ উপ-পরিচালক, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর/ উপ-পরিচালক, সমাজ সেবা অধিদপ্তর/ জেলা ত্রাণ ও পূনর্বাসন কর্মকর্তা / উপ-পরিচালক, পরিবার পরিকল্পনা/ জেলা শিক্ষা অফিসার/ জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার/ জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা। (জ্যেষ্ঠতার ক্রমানুসারে নয়)

১০। ভাইস-চেয়ারম্যান/ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, জুরাছড়ি, রাঙ্গামাটি।

১১। উপজেলা ........................................... কর্মকর্তা, জুরাছড়ি রাঙ্গামটি।

১২। চেয়ারম্যান, ......................................... (সকল)   ইউপি, জুরাছড়ি।

১৩। জনাব ............................................................... জুরাছড়ি, রাঙ্গামাটি।

 

স্বা/২৭/১১/২০১২ খ্রিঃ।

(মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম)

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

জুরাছড়ি, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা।